Smartphone Newsইনফরমেশন টেকনোলজি

আইফোন,ল্যাপটপেও থাকতে হবে ইউএসবি-সি পোর্ট

আইফোন,ল্যাপটপেও থাকতে হবে ইউএসবি-সি পোর্ট

২০২৪ সালের পর বাজারে আসা আইফোনসহ সকল মোবাইল ফোনে বাধ্যতামূলকভাবে ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্ট থাকতে হবে। অন্ততপক্ষে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাজারগুলোতে ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্ট ছাড়া কোনো ফোন বিক্রি করা যাবে না। মঙ্গলবার ইউরোপীয় ইউনিয়ন পার্লামেন্ট ও কাউন্সিল এই ঘোষণা দিয়েছে। খবর জিএসএম এরিনা।

শুধু মোবাইল ফোন নয়, ডিজিটাল ক্যামেরা, ট্যাববেটসহ যেসব কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে ওয়্যার চার্জিং সুবিধা থাকতে সেগুলোতে বাধ্যতামূলকভাবে ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্ট ব্যবহার করতে হবে। ল্যাপটপের ক্ষেত্রে কিছুটা বেশি সময় পাচ্ছেন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো।

অনেক আগে থেকেই একটি একক চার্জিং পোর্টের নীতি বাস্তবায়নে কাজ করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। তবে বরাবরই অ্যাপল এর বিরোধিতা করে আসছে। এ বিষয়ে প্রায় এক দশক ধরে বিতর্ক চলে আসছে।

গত সেপ্টেম্বরে ইইউ ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্টের বাধ্যবাধকতার বিষয়ে আর ছাড় দেবে না এমন ঘোষণা দেয়। অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে সেই ঘোষণা এলো। এখন শুধুমাত্র ইইউ পার্লামেন্ট ও কাউন্সিলের আনুষ্ঠানিকভাবে সমঝোতার অনুমোদন বাকি রয়েছে।

নীতিমালা বাস্তবায়ন শুরু হলে পরবর্তী ৪০ মাসের মধ্যে ল্যাপটপেও ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্ট থাকতে হবে। নীতিমালায় ফাস্ট চার্জিংয়ের একটি মানও নির্ধারণ করে দেবে সংস্থাগুলো, যাতে ব্যবহারকারীরা সমর্থিত যেকোনো চার্জার দিয়ে একই গতিতে তাদের ডিভাইসগুলো চার্জ দিতে পারেন।

এ বিষয়ে অ্যাপলের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button