আর্টিকেল

এটিএম বুথ ব্যবহারের ক্ষেত্রে যেসব সতর্কতা মেনে চলা উচিৎ

এটিএম বুথ ব্যবহারের ক্ষেত্রে যেসব সতর্কতা মেনে চলা উচিৎ

ব্যাংক এর শাখায় গিয়ে টাকা তোলার প্রচলন অনেকটা কমে গিয়েছে। এটিএম বুথ এর কল্যাণে ব্যাংক থেকে টাকা তোলার প্রক্রিয়া বেশ সহজ হয়ে গিয়েছে। যেকোনো পাবলিক প্লেসে প্রয়োজনে টাকা তোলার জন্য এটিএম সর্বত্র ব্যবহার হয়।

এটিএম বুথ একটি নিরাপদ প্রযুক্তি। কিন্তু তবুও কার্ড দিয়ে টাকা তোলার ক্ষেত্রে নিরাপত্তার একটি বড় দায়িত্ব ব্যবহারকারীর হাতে থাকে। এই পোস্টে জানবেন এটিএম বুথ ব্যবহারের ক্ষেত্রে যেসব বিষয় মনে রাখা দরকার সেসব সতর্কতা সম্পর্কে।

পিন গোপন রাখুন

এই পরামর্শটি আপনি হাজারবার শুনে থাকবেন, কিন্তু কার্ডের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে পিন গোপন রাখার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছুই নেই। কখনো আপনার পিন কারো সাথে শেয়ার করবেন না। সহজ কোথাও পিন লিখে রাখা থেকেও বিরত থাকুন। বাইরের কারো সাথে, এমনকি খুব দরকার না হলে নিজের পরিবারের সদস্যদের সাথেও পিন শেয়ার থেকে বিরত থাকুন। সম্ভব হলে নিয়মিত আপনার পিন আপডেট করার চেষ্টা করুন।

আশেপাশের পরিবেশ সম্পর্কে সজাগ থাকুন

এটিএম বুথ ব্যবহারের ক্ষেত্রে আশেপাশের পরিবেশ সম্পর্কে সজাগ থাকুন, বিশেষ করে রাতের বেলায় বাড়তি সাবধানতা অবলম্বন করুন। আশেপাশে যদি কোনো সন্দেহজনক কাউকে দেখেন, কিংবা আলোর কমতি থাকে, তাহলে উক্ত বুথ থেকে টাকা তুলবেন না। চেষ্টা করুন কোনো পাবলিক এরিয়াতে থাকা এটিএম বুথ ব্যবহার করতে।

কাউকে সাথে নিয়ে যান

এটিএম বুথে যাওয়ার সময় কাউকে সাথে নিয়ে যেতে পারেন। পরিবারের সদস্য বা কোনো বন্ধু কাছে না থাকলে সেক্ষেত্রে কোনো পাবলিক এরিয়াতে থাকা এটিএম বুথ ব্যবহারের চেষ্টা করুন, এতে কোনো সমস্যা হলে বুথ ও আশেপাশে থাকা ভিডিও সার্ভেইলেন্স ক্যামেরাতে তা ধরা পড়বে।

আগে থেকে কার্ড হাতের নাগালে রাখুন

এটিএম বুথে প্রবেশের আগে আপনার কার্ড হাতের নাগালে রাখুন। এটিএম বুথে প্রবেশের পর কার্ড খুঁজতে গিয়ে অপরাধীকে সুযোগ করে দিবেন না। সবসময় এটিএম বুথে প্রবেশের আগে মানসিক প্রস্তুতি গ্রহণ করুন ও তৈরী থাকুন যাতে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে।

পিন এর সুরক্ষা নিশ্চিত করুন

এটিএম বুথে আপনার পিন প্রদানের সময় আপনার বডিকে নিরাপত্তা দেয়াল হিসেবে ব্যবহার করুন। পেছন থেকে কেউ যাতে আপনার পিন দেখতে না পারে সে বিষয় নিশ্চিত করুন।

ট্রানজেকশন রেকর্ড নিজের কাছে রাখুন

ট্রানজেকশন রেকর্ড বা রিসিট নিজের সাথে রাখুন সবসময়। এর ফলে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য অন্য কারো হাতে যাওয়া থেকে সুরক্ষা পাবেন।

তৎক্ষণাৎ টাকা গোনার কি প্রয়োজন আছে?

এটিএম বুথ থেকে কখনো কম এমাউন্টের টাকা প্রদান করা হয়না। তাই ক্যাশ হাতে পাওয়ার পর বুথের মধ্যে থেকে তা না গুণলেও সমস্যা হওয়ার কথা না। টাকা হাতে পাওয়ার পর সাথে সাথে তা না গুণে বরং তা আপনার পার্স বা ওয়ালেটে নিয়ে নিন ও পরে কোনো নিরাপদ স্থানে গিয়ে তা গুণে নিন। তবে হ্যাঁ, এটিএম থেকে ছেঁড়া টাকা বা এটিএম বুথে জাল নোট পাওয়া ঠেকাতে টাকাগুলো বুথের মধ্যেই সিসি ক্যামেরার সামনে একবার চেক করে নিতে পারলে ভাল হয়।

কার্ড স্কিমার চেক করুন

কার্ড স্কিমার হলো এটিএম এর পেমেন্ট টার্মিনাল এর সাথে যুক্ত থাকা ডিভাইস যা দ্বারা এটিএম কার্ডের তথ্য চুরি করার ঘটনা ঘটতে শোনা গেছে। বুথে কার্ড প্রবেশের আগে অবশ্যই কোনো ধরনের কার্ড স্কিমার আছে কিনা তা নিজে চেক করে নিন। যদি কার্ড রিডার স্লট ল্যুজ মনে হয় বা ব্যাংকের সাধারণ ব্র্যান্ডিং কালারের চেয়ে ভিন্ন কালারের মনে হয় বা কিবোর্ড ব্যবহারে অস্বাভাবিক মনে হয়, তাহলে আশংকা থাকতে পারে যে সেখানে স্কিমার ডিভাইস যুক্ত রয়েছে। এমতাবস্থায় বুথের দায়িত্বরত ব্যক্তিকে জানান।

ড্রাইভ-আপ এটিএম ব্যবহারে সাবধানতা

ড্রাইভ-আপ এটিএম ব্যবহারের ক্ষেত্রে প্যাসেঞ্জার উইন্ডো গুটানো ও অন্যান্য দরজা বন্ধ আছে কিনা তা নিশ্চিত করুন। আপনার কার থেকে বের হয়ে এটিএম এর নিকট গেলে কার লক করতে ভুলবেন না। এছাড়া রেডিও অন থাকলে তা বন্ধ করে দিন বা ভলিউম কমিয়ে দিন।

উল্লেখিত বিষয়গুলো মাথায় রেখে যদি আপনি এটিএম বুথ ব্যবহার করেন, তাহলে কোনো ধরনের আর্থিক বা শারীরিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন না বলে আশা করা যায়। নিজের সাবধানতা সব সময়ই অনুসরণ করুন। এটিএম বুথ নিয়ে আপনার অভিজ্ঞতা কমেন্টে জানান!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button