প্রশ্ন ও উত্তর

এসএসসি (SSC) ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং ১ম অধ্যায় সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

সৃজনশীল প্রশ্ন-১ :

রফিক একজন বিনিয়োগকারী। তিনি তাঁর সঞ্চয়ের সব অর্থ ১৫ লাখ টাকা দিয়ে নীড় কোম্পানি লিমিটেডের শেয়ার কেনেন। শেয়ার মার্কেটে মন্দাভাব দেখা দিলে তাঁর শেয়ারের দাম অনেক কমে যায়। এতে বড় ক্ষতির মুখে পড়েন রফিক সাহেব। অন্য দিকে তাঁর বন্ধু শফিক সাহেব বিভিন্ন খাতের একাধিক কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগ করেন। গড়পড়তায় শফিক সাহেব লাভজনক অবস্থায় আছেন।

ক. সরকারি অর্থায়নের মূল লক্ষ্য কী?

খ. পারিবারিক অর্থায়ন ব্যাখ্যা করো।

গ. রফিক সাহেবের বিনিয়োগে অর্থায়নের কোন নীতিটি লঙ্ঘিত হয়েছে? ব্যাখ্যা করো।

ঘ. শফিক সাহেবের বিনিয়োগ সিদ্ধা​ন্তের যথার্থতা মূল্যায়ন করো।

১নং প্রশ্নের উত্তর

ক. সরকারি অর্থায়নের মূল লক্ষ্য সমাজকল্যাণ।

খ. পারিবারিক অর্থায়ন বলতে পরিবারের আয় ও ব্যয়ের মধ্যে সার্থক সমন্বয়কে বোঝায়। অর্থাৎ পরিবারের সীমিত আয় কীভাবে ব্যয় করলে পরিবারের সদস্যদের সর্বাঙ্গীণ কল্যাণ হয়, তা–ই পারিবারিক অর্থায়নের মূল উপজীব্য।

পরিবারের নিয়মিত আয় থেকে নিয়মিত ব্যয়গুলো করা হয়ে থাকে। এমনভাবে ব্যয় পরিকল্পনা করা হয়, যাতে প্রতি মাসে কিছু টাকা সঞ্চয় করা যায়। সঞ্চিত অর্থ দিয়ে টিভি, ফ্রিজ, এসি, আসবাবপত্র, গয়না ইত্যাদি ক্রয় করা হয়। এসব করতে সঞ্চয়ের অর্থ যথাযথ না হলে আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব কিংবা ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়া হয়।

গ. রফিক সাহেবের বিনিয়োগ সিদ্ধা​ন্তে পণ্যের বৈচিত্র্যায়ণের মাধ্যমে ঝুঁকি বণ্টনের নীতি লঙ্ঘিত হয়েছে।

এই নীতির মূলকথা হচ্ছে—তহবিল বিনিয়োগের ক্ষেত্রে পণ্য বা সেবা যতদূর সম্ভব বৈচিত্র্যপূর্ণ হলে ব্যবসায়ের ঝুঁকি বণ্টিত হয় ও হ্রাস পায়। রফিক সাহেব বিনিয়োগের ক্ষেত্রে এই নীতি মানেননি। তিনি সুযোগ থাকা সত্ত্বেও একাধিক কোম্পানির শেয়ার না কিনে একটি কোম্পানির শেয়ার কিনেছেন। বাজারে মন্দাভাব আসায় তাঁর ওই শেয়ারের দাম অনেক কমে গেলে তিনি বড় ক্ষতির সম্মুখীন হন।

ঘ. উদ্দীপকে বর্ণিত শফিক সাহেবের বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত যথার্থ হয়েছে।

তিনি বিনিয়োগ সিদ্ধান্তে পণ্যের বৈচিত্র্যায়ণ ও ঝুঁকি বণ্টনের নীতি মেনে বিভিন্ন খাতের একাধিক কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগ করেছেন। ফলে বাজার মন্দা হলেও একটি কোম্পানির ক্ষতি অন্য কোম্পানির শেয়ারের লাভ দিয়ে পুষিয়ে নিয়েছেন। ঝুঁকি বণ্টনের নীতি অনুসরণের ফলে অনিশ্চিত বাজার পরিস্থিতিতেও প্রত্যাশিত মুনাফা অর্জন সম্ভব। একজন ব্যবসায়ী যদি শুধু এক ধরনের পণ্যের ব্যবসায় করেন, তাহলে মুনাফা অর্জন বেশ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যায়।

পক্ষান্তরে ব্যবসায়ের পণ্য যদি বিভিন্ন ও বৈচিত্র্যপূর্ণ হয়, তাহলে ঝুঁকি বণ্টিত হয়ে যায়। অর্থাৎ কোনো পরিস্থিতিতে একটি পণ্যের বিক্রয় হ্রাস পেলে অন্যান্য পণ্যের বিক্রয় দিয়ে ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া যায়। ফলে সব ধরনের অবস্থায় কাঙ্ক্ষিত মুনাফা অর্জিত হয়।

সুতরাং বলা যায়, শফিক সাহেবের একাধিক কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত যথার্থ হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button