প্রশ্ন ও উত্তর

অর্থনীতি বিষয়ক প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব-৩)

প্রশ্ন-১। উন্নয়ন অর্থনীতি কি?

উত্তরঃ যে সকল নীতি ও কলাকৌশল প্রণয়ন ও অনুশীলন করে সম্ভাব্য স্বল্পতম সময়ে সমগ্র সমাজের অর্থনৈতিক, প্রাতিষ্ঠানিক ও সামাজিক পরিবর্তন সাধন করা যায়, তাকে উন্নয়নের অর্থনীতি বা উন্নয়ন অর্থনীতি বলে।

প্রশ্ন-২। বাজার অর্থনীতি কাকে বলে?

উত্তরঃ বাজার অর্থনীতি বলতে সে রকম এক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে বুঝায় যেখানে পণ্য ও সেবার উৎপাদন এবং বণ্টনসহ যাবতীয় অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বাজারের শক্তি দ্বারা পরিচালিত ও নিয়ন্ত্রিত হয়।

প্রশ্ন-৩। বােনাস কি?

উত্তরঃ মুনাফার উপর নির্ভর করে শ্রমিকদের বেতন এর অতিরিক্ত যে টাকা প্রদান করা হয় তাই বােনাস। পণ্য উৎপাদনের ভিত্তি করে যে বােনাস প্রদান করা হয় তা ইনসেনটিভ বােনাস, আর মুনাফার উপর ভিত্তি করে যে বােনাস দেয়া হয় তাকে বাৎসরিক বােনাস বলা হয়।

প্রশ্ন-৪। প্রমাণ ব্যয় কাকে বলে?

উত্তরঃ উৎপাদনে কী পরিমাণ ব্যয় হওয়া উচিত তা পূর্ব হতে নির্ধারণ করা হয়। উৎপাদনের সময় প্রমাণ ব্যয়ের সাথে প্রকৃত ব্যয়ের তুলনা করা হয়। উভয় ব্যয়ের মধ্যে পার্থক্য দেখা দিলে তার কারণ অনুসন্ধান করে সে অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। এ পদ্ধতিকে প্রমাণ ব্যয় বলে।

প্রশ্ন-৫। প্রফেসর লক্স (Loucks) এর মতে পুঁজিবাদ কি?

উত্তরঃ প্রফেসর লক্স (Loucks) এর মতে, “পুঁজিবাদ হলাে অর্থনৈতিক সংগঠনের এমন এক ধরনের ব্যবস্থা যেখানে মানব সৃষ্টি ও প্রকৃতি সৃষ্টি পুঁজির উপর ব্যক্তিমালিকানা প্রতিষ্ঠিত থাকে এবং সেগুলাে ব্যক্তিগত মুনাফার লক্ষ্যে ব্যবহৃত হয়।”

প্রশ্ন-৬। পুঁজিবাদ বলতে কি বুঝায়?

উত্তরঃ পুঁজিবাদ বলতে এমন এক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে বুঝায় যেখানে উৎপাদনের উপকরণসমূহ ব্যক্তিমালিকানাধীন থাকে এবং ব্যক্তি তার ব্যক্তিগত লাভ বা মুনাফা অর্জনের লক্ষ্যে পুঁজি বা ধন ব্যবহার করে।

প্রশ্ন-৭। অর্থনীতিতে ‘বিনিময় হার’ বলতে কী বোঝায়?

উত্তরঃ বিনিময় হার বলতে মূলত বৈদেশিক মুদ্রার বিনিময় হারকে বুঝানাে হয়। বৈদেশিক দেনা-পাওনা মিটানাের জন্য এক দেশের মুদ্রা সাধারণত অপর দেশে গ্রহণ করা হয় না। এ কারণে এক দেশের মুদ্রাকে অপর দেশের মুদ্রায় পরিবর্তন করতে হয়। যে হারে বিভিন্ন দেশের মুদ্রার পরিবর্তন বা বিনিময় হয় তাকেই বিনিময় হার বা বৈদেশিক মুদ্রার বিনিময় হার বলে।

প্রশ্ন-৮। সামাজিক বীমা কাকে বলে?

উত্তরঃ জীবনে আকস্মিক বিপদাপদ ও নানা প্রকার ঝুঁকির হাত থেকে মানুষকে রক্ষার জন্য সমাজের তথা রাষ্ট্রের পক্ষ হতে যে নিরাপত্তা প্রদান করা হয়, তাকে সামাজিক বীমা বলে?

প্রশ্ন-৯। মুদ্রা বাজার কি?

উত্তরঃ স্বল্পমেয়াদি ঋণের বাজারকে মুদ্রা বাজার বলা হয়। স্বল্পমেয়াদি ঋণপত্র যথা: ট্রেজারি বিল, প্রতিশ্রুতি পত্র, সঞ্চয় সার্টিফিকেট ইত্যাদি মুদ্রা বাজারে ঋণের আদান-প্রদানের জন্য ব্যবহৃত হয়। অর্থনীতির সর্বত্র স্বল্পমেয়াদি ঋণের দাতা ও গ্রহীতার সমন্বয়ে মুদ্রা বাজার গঠিত হয়।

প্রশ্ন-১০। মানব সম্পদ উন্নয়ন কি?

উত্তরঃ একটি দেশের শ্রমশক্তির উৎপাদনমুখী ক্ষমতার উন্নয়নই হচ্ছে মানব সম্পদ উন্নয়ন। অর্থাৎ উৎপাদনের বিভিন্নক্ষেত্রে মানুষের কর্মদক্ষতা সুষ্ঠুভাবে ব্যবহারের উদ্দেশ্যে মানুষের অন্তর্নিহিত বিভিন্ন কর্মগুণ উন্নত ও বিকশিত করে তােলাই হচ্ছে মানব সম্পদ উন্নয়ন।

প্রশ্ন-১১। গৃহ সঞ্চয়ী হিসাব কি?

উত্তরঃ ব্যাংক যে সঞ্চয়ী হিসাবের মাধ্যমে জনগণকে ঘরে বসে অর্থ সঞ্চয়ের সুবিধা দেয় তাকে গৃহ সঞ্চয়ী হিসাব বলে। সাধারণত দরিদ্র ও অশিক্ষিত জনগােষ্ঠির মধ্যে সঞ্চয় প্রবণতা বৃদ্ধি করার জন্য এ ধরনের হিসাব পরিচালনা করা হয়।

প্রশ্ন-১২। অনাবাসিক হিসাব কাকে বলে?

উত্তরঃ দেশীয় নাগরিক বিদেশে অবস্থানকালে দেশের কোন ব্যাংকের শাখায় যে সঞ্চয়ী বা স্থায়ী হিসাব খােলে তাকে অনাবাসিক হিসাব বলে। এ হিসাব দেশীয় মুদ্রায় পরিচালিত হয়।

প্রশ্ন-১৩। বৈদেশিক মুদ্রা হিসাব কি?

উত্তরঃ বিদেশে অবস্থানরত দেশীয় নাগরিকগণ যে হিসাবে বৈদেশিক মুদ্রা আমানত হিসাবে জমা করে তাকে বৈদেশিক মুদ্রা হিসাব বলে। এই হিসাব বিদেশী মুদ্রায় পরিচালিত হয়।

প্রশ্ন-১৪। ডক রসিদ কাকে বলে?

উত্তরঃ রপ্তানির উদ্দেশ্যে পণ্য-দ্রব্য বন্দরে উপস্থাপন করলে ডক কর্তৃপক্ষ তা বুঝে নিয়ে রপ্তানিকারক বা তার প্রতিনিধিকে যে রসিদ প্রদান করে, তাকে ডক রসিদ বলে।

প্রশ্ন-১৫। GDP কি?

উত্তরঃ কোনাে একটি নির্দিষ্ট সময়ে সাধারণত এক বছরে কোনাে দেশের অভ্যন্তরে উৎপাদিত সকল দ্রব্যসামগ্রী ও সেবাকর্মের আর্থিক মূল্যের সমষ্টিই হলাে GDP বা মােট জাতীয় উৎপাদন।

প্রশ্ন-১৬। অর্থনীতির ক্ষেত্রে PPP কি?

উত্তরঃ PPP (Purchasing Power Parity) হলাে বিভিন্ন দেশের মধ্যে মুদ্রার প্রকৃত ক্রয়ক্ষমতা পরিমাপের জনপ্রিয় সূচক বা তত্ত্বীয় পদ্ধতি। এ তত্ত্ব অনুসারে দুটি মুদ্রার দীর্ঘমেয়াদি স্থায়ী বিনিময় হারই মূলত এ দুই মুদ্রার ক্রয়ক্ষমতার হার।

প্রশ্ন-১৭। কেন্দ্রীয় ব্যাংক কাকে বলে?

উত্তরঃ যে ব্যাংক দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলাে নিয়ন্ত্রণ করে, দেশে মুদ্রা প্রচলন করে এবং সরকারের আর্থিক প্রতিনিধি ও পরামর্শদাতা হিসাবে কাজ করে তাকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলে।

প্রশ্ন-১৮। কালাে টাকার উৎসগুলাে কী কী?

উত্তরঃ কালাে টাকার প্রধান উৎসগুলাে হচ্ছে কর ফাঁকি, ঘুষ, দুর্নীতি এবং চোরাচালান। তাছাড়া ওভার ইনওয়েসিং, আন্ডার ইনভয়েসিং, ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে তা ফেরত না দেওয়া, চাঁদাবাজি, মজুতদারিও কালাে টাকার মধ্যে পড়ে।

প্রশ্ন-২০। মুদ্রাসংকোচন কি?

উত্তরঃ যখন কোনাে দেশে দ্রব্যের যােগান অপেক্ষা অর্থের যােগান কম হয় তখন মূল্যস্তর হ্রাস পায়। মূল্যস্তরের এ হ্রাসকে মুদ্রা-সংকোচন বলা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button