MOBILES LEAKSSmartphone News

শাওমি আনলো নতুন রেডমি আলট্রা ফোন, ফোল্ডেবল এবং ট্যাব

শাওমি আনলো নতুন ফোন

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া শাওমি মিক্স ফোল্ড ২, রেডমি কে৫০ আলট্রা ও শাওমি প্যাড ৫ প্রো ১২.৪ সম্পর্কে জানবেন এই পোস্টে।

শাওমি মিক্স ফোল্ড ২

শাওমি মিক্স ফোল্ড ২

শাওমি মিক্স ফোল্ড ২ বর্তমানের সবচেয়ে পাতলা (Thin) ফোল্ডিং ফোন। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৪ ভাঁজ করা অবস্থায় ১৫.৮মিলিমিটার ও আনফোল্ড করা অবস্থায় ৬.৩মিলিমিটার। অন্যদিকে মিক্স ফোল্ড ২ আনফোল্ড করা অবস্থায় মাত্র ৫.৪মিলিমিটার ও ফোল্ড করা অবস্থায় অবস্থায় ১১.২মিলিমিটার। অর্থাৎ গ্যালাক্সি জি ফোল্ড ৪ এর প্রায় সকল রেকর্ড ভেংগে দিয়েছে ফোনটির একদিন পরে মুক্তি পাওয়া শাওমি মিক্স ফোল্ড ২।

২৬২গ্রাম ওজনের শাওমি মিক্স ফোল্ড ২ ডিভাইসটির ফ্রন্টে ৬.৫৬ইঞ্চির অ্যামোলেড স্ক্রিন রয়েছে। ২১ঃ৯ এসপেক্ট রেশিও এর এই স্ক্রিন সাধারণ যেকোনো স্মার্টফোন এর প্রায় কাছাকাছি বলা চলে। ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেটের এই ডিসপ্লেকে সুরক্ষা প্রদান করছে গরিলা গ্লাস ভিক্টাস, এছাড়া পাঞ্চ-হোলে ২০মেগাপিক্সেল সেল্ফি ক্যামেরা স্থান পেয়েছে।

৮ইঞ্চির এলটিপিও২ ওলেড মেইন ডিসপ্লেতে ভ্যারিয়েবল রিফ্রেশ রেট রয়েছে। কোয়ালকম এর স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন১ চিপসেট ব্যবহৃত হয়েছে শাওমি মিক্স ফোল্ড ২ এ, যা সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ১টেরাবাইট স্টোরেজ মডেলে পাওয়া যাবে।

মিক্স ফোল্ড ২ ডিভাইসটি লাইকা’র সাথে পার্টানারশিপের কল্যাণে কিছু এক্সক্লুসিভ ফিচার পেতে যাচ্ছে। ফোনটির ৫০মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সরে অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন ও লাইকা অপটিকস রয়েছে। ফোনের ব্যাকে ১৩মেগাপিক্সেল এর আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা ও ৮মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা রয়েছে যা ২এক্স অপটিক্যাল জুম সাপোর্টেড।

৪৫০০মিলিএম্প ব্যাটারির শাওমি মিক্স ফোল্ড ২ ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে ৬৭ওয়াটের। ১২/২৫৬জিবি মিক্স ফোল্ড ২ মডেল এর দাম ৮,৯৯৯ইউয়ান বা ১৩৪০ডলার। অন্যদিকে ১২জিবি র‍্যাম ও ১টেরাবাইট স্টোরেজ মডেল এর দাম ১১,৯৯৯ইউয়ান বা ১৭৮০ডলার।

শাওমি রেডমি কে৫০ আলট্রা

শাওমি রেডমি কে৫০ আলট্রা

রেডমি কে৫০ প্রো ও কে৫০ গেমিং, এই ফোন দুইটির সংমিশ্রণ হলো রেডমি কে৫০ আলট্রা। রেডমি কে৫০ আলট্রাতে স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে যা কোনো রেডমি ফোনে এই প্রথম। সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে রেডমি কে৫০ আলট্রা।

রেডমি কে৫০ আলট্রা এর ৬.৬৭ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লেটি একটি ১২-বিট প্যানেল। আবার এই ডিসপ্লে এইচডিআর১০+ ও ডলবি ভিশন এর পাশাপাশি ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্টেড। Surge P1 চিপ এর কল্যাণে ১২০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং দ্বারা চার্জ করা যাবে রেডমি কে৫০ আলট্রা এর ৫০০০মিলিএম্প ব্যাটারি।

রেডমি কে৫০ আলট্রা এর ক্যামেরা হুবহু কে৫০ প্রো এর আদলে রাখা হয়েছে। ১০৮মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সরের পাশাপাশি ৮মেগাপিক্সেল আলট্রা-ওয়াইড ও ২মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স রয়েছে। এছাড়া ফোনের ফ্রন্টে ২০মেগাপিক্সেল এর সেল্ফি ক্যামেরা স্থান পেয়েছে।

রেডমি কে৫০ আলট্রা পাওয়া যাবে কালো, সিলভার ও নীল কালারে। ৩,০০০ইউয়ান বা ৪৪৫ডলার থেকে রেডমি কে৫০ আলট্রা এর দাম শুরু। ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ এর স্পেশাল মার্সিডিস এফ১ এডিশন এর দাম ৪,২০০ইউয়ান।

শাওমি প্যাড ৫ প্রো ১২.৪”

শাওমি প্যাড ৫ প্রো ১২.৪"

নাম শুনে নিশ্চয় বুঝতে পারছেন শাওমি প্যাড ৫ প্রো ১২.৪” হলো মূলত শাওমি প্যাড ৫ প্রো এর ১২.৪ইঞ্চি ডিসপ্লে সংস্করণ। অরিজিনাল প্যাড ৫ প্রো তে ১১ইঞ্চির ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছিলো। নতুন ১২.৪ইঞ্চির ডিসপ্লের রেজ্যুলেশন একই হলেও প্রায় ২৭% অধিক ভিউয়িং এরিয়া রয়েছে নতুন প্যাড ৫ প্রো তে।

আগের মডেলের মত নতুন প্যাড ৫ প্রো-তেও ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট রয়েছে। আগের ভার্সনে ৮,৬০০মিলিএম্প ব্যাটারি ছিলো, নতুন ১২.৪ইঞ্চি ভার্সনে ১০,০০০মিলিএম্প এর অপেক্ষাকৃত বড় ব্যাটারি ব্যবহৃত হয়েছে। ৬৭ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এর বদৌলতে ৩৬মিনিটে ৬০% এবং মাত্র ৬৮মিনিটে ফুল চার্জ করা যাবে নতুন শাওমি প্যাড ৫ প্রো। পুরোনো মডেলের পুরুত্ব ৬.৯মি.মি. থেকে কমিয়ে ৬.৬৬মি.মি. এ আনা হয়েছে নতুন ট্যাবলেটে।

অন্যান্য সকল ফিচার প্রায় একই নতুন ও পুরাতন মডেলের ক্ষেত্রে। সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে শাওমি প্যাড ৫ প্রো ১২.৪” যা স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ চিপসেট দ্বারা চলবে। এই চিপ এর সুবিধা হলো এটি ৫জি সুবিধার পাশাপাশি ব্লুটুথ ৫.২ ও ওয়াইফাই ৬ এর মত লেটেস্ট ফিচার অফার করছে।

ট্যাবের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে ২০মেগাপিক্সেলের। ফোনের ব্যাকে ৫০মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সরের সাথে ২মেগাপিক্সেল এর ডেপথ সেন্সর রয়েছে। ১১ইঞ্চির প্যাড ৫ প্রো এর শুধুমাত্র ৫জি ভার্সনে ৫০মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা ছিলো।

শাওমি প্যাড ৫ প্রো ১২.৪” এর বেস মডেল এর দাম ৩,০০০ইউয়ান বা ৪৪৫ডলার। ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ এর সর্বোচ্চ ভ্যারিয়েন্ট এর দাম ৪,২০০ইউয়ান। এছাড়া ৪৭০ইউয়ান দামের কিবোর্ড ও ৩৫০ইউয়ান দামের স্টাইলাসও বিক্রি করছে শাওমি।

কেমন লাগলো শাওমির নতুন এই ডিভাইসগুলো? আপনি কোনটি কোনটি কিনতে চান? কমেন্টে জানান!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button