Basic TechnologyTechnology

কি পাসওয়ার্ড দিলে হ্যাক করা সম্ভব নয়

পাসওয়ার্ড দিতে গিয়ে যে ভুল গুলো করে থাকি

আমরা এই প্রযুক্তি দুনিয়ায় কম্পিউটার মোবাইল চালনায় অনেকক্ষেত্রেই পাসওয়ার্ড ব্যবহারের প্রয়োজন পরে। এই পাসওয়ার্ড নিজে দিতে গিয়ে অনেক ভুল করে থাকি যার কারনে অনেকেই অনেক ধরনের হয়রানির শিকার হতে হয়, অনেক কিছুই হারিয়ে যায়, হ্যা’ক হয়ে যায় আমাদের প্রয়োজনীয় প্লাটফরম। তবে আজ পাসওয়ার্ড নিয়ে আলোচনা করব কি ধরনের ভুল করে থাকি এবং কি পাসওয়ার্ড ব্যবহার করলে আমরা সুরক্ষিত থাকব।

কি পাসওয়ার্ড দিলে হ্যাক করা সম্ভব নয়, পাসওয়ার্ড কিভাবে তৈরি করব?

* আমরা বিভিন্ন প্লাটফরম ব্যবহার করে পাসওয়ার্ড দিয়ে থাকি অনেকেই সবকিছুতেই একই পাসওয়ার্ড দিয়ে থাকে সেক্ষেত্রে হ্যা’কারদের হ্যা’ক করতে সুবিধা হয়ে যায়।

নতুন কোন একাউন্ট খোলার সময় পুরোনো পাসওয়ার্ড গুলো না দেওয়াই ভাল, কারন হ্যাকাররা পুরোনো পাসওয়ার্ড এর তালিকা অনেক সময় সংগ্রহ করতে পারে।

 

* আমরা অনেকেই পাসওয়ার্ড দিয়ে তা অনলাইনে বা অফলাইনে লিখে রাখি। এভাবে লিখে রাখার ফলে হ্যাকাররা বা অনেকে কাছেই এই পাসওয়ার্ড নিয়ে নিতে পারবে।

আমরা পাসওয়ার্ড অনলাইনে বা অফলাইনে লিখে না রাখাই ভাল। যতটুকু সম্ভব মনে রাখার চেষ্টা করব।

 

* পাসওয়ার্ড দেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা যে ভুল কাজটি বেশিরভাগই করে থাকি তা হলো কমন পাসওয়ার্ড দিয়ে দেই, যেমন-মোবাইল নাম্বার, জন্ম তারিখ, সিরিয়াল সংখ্যা বা নাম। এই ধরনের পাসওয়ার্ড দেওয়ার কারনে আমরা সহজেই বিপদে পরে যাই খুব সহজেই যে কেউ আমাদের পাসওয়ার্ডটি বুঝে ফেলতে পারে আর কেউ ক্ষতি করতে চাইলে সহজেই ক্ষতি করতে পারে আমাদের এবং হ্যাকারদের তো খুব সহজেই এই পাসওয়ার্ড বের করা সহজ হয়ে যায়।

সমাধান হলো- আমরা যখনই পাসওয়ার্ড দেব তখন একটি বড় হাতের অক্ষর দেব এবং একটি ছোট হাতের অক্ষর দেব ও সাংকৃতিক অক্ষরও ব্যবহার করব এবং কিছু সংখ্যা দেব, এভাবে দিলে হ্যাকারদের হ্যাক করা সম্ভব হয়ে উঠে না।

 

* আমরা আরেকটি ভুল করে থাকি ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সংরক্ষের অনুমতি দিয়ে দেই। ইন্টারনেট ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সেভ রাখার অপশন চালু রাখি। এভাবে অনুমতি দেওয়ার কারনে আমরা বিপদে পড়তে পারি বা আমরা যদি কোন ভাইরাসযুক্ত ওয়েবসাইট ভিজিট করি তখন আমাদের এই পাসওয়ার্ড গুলো দুর্বল হয়ে যেতে পারে।

সমাধান হলো- আমরা ব্রাউজারের মাধ্যমে যখন কোন সাইটকে লগিং করি তখন ব্রাউজারে যেন পাসওয়ার্ড সেভ না থাকে সেটা খেয়াল রাখতে হবে।

* আরেকটি ভুল করি আমরা একই পাসওয়ার্ড অনেক দিন যাবত ব্যবহার করি পরিবর্তন করি না। আমরা অবশ্যই আমাদের গুরুত্ব অনুযায়ী যেকোন কিছু সুরক্ষা রাখার জন্য মাঝে মধ্যে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে পারি এটাও একটা ভাল পন্থা নিজের ব্যবহার করা প্লাটফরমগুলো সুরক্ষিত রাখার জন্য।

 

অনেক প্লাটফরম আছে যেখানে মোবাইল নাম্বার দিয়ে টুস্টেপ ভিরিফিকেশন করে রাখা যায় মানে মোবাইল নাম্বার দিয়ে রাখা যায় যখনই লগিং করতে যাব বা যাবে তখন মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে পিন ভিরিফিকেশন করতে হয় , এই টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অনেকেই করে রাখে না যার কারনে আইডি মজবুত হয় না হ্যাক হওয়ার সম্ভবনা থাকে। সমাধান হলো মোবাইল নাম্বার দিয়ে টুস্টেপ ভেরিফিকেশন করে রাখা যেন পরিবর্তিতে লগিং করতে গেলেই মোবাইল থেকে পিন দিলেই লগিং করা যায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button