Technologyইনফরমেশন টেকনোলজি

টিকটকে চালু হয়েছে স্ক্রিন টাইম ম্যানেজমেন্ট ফিচার

টিকটকে যুক্ত হলো নতুন ফিচার

জনপ্রিয় বিনোদন ও শর্ট ভিডিও প্ল্যাটফর্ম টিকটক আমাদের ডিজিটাল সুস্থতার জন্য বাস্তবসম্মত নতুন দুটি টুল উন্মোচনের ঘোষণা দিয়েছে। নতুন ফিচারের মাধ্যমে টিকটক কমিউনিটির ব্যবহারকারীরা প্ল্যাটফর্মটিতে তাদের ব্যয় করা সময় সেটিংস থেকে নিজেদের মতো নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। এর সঙ্গে নিতে পারবেন নিয়মিত স্ক্রিন টাইম বিরতি, ফলে এখন আপনার টিকটক ব্যাবহারের অভিজ্ঞতা পুরোটাই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন আপনি নিজেই।

নতুন স্ক্রিন টাইম ড্যাশবোর্ডটিতে থাকবে টিকটকের সৃজনশীল কমিউনিটির সব তথ্য, যেখানে ব্যবহারকারী জানতে পারবেন তিনি সেখানে কতটা সময় ব্যয় করছেন, সেই সঙ্গে সারা দিনের ব্যবহারের একটি সারসংক্ষেপও পাবেন। ব্যবহারকারীরা দিনে কতবার অ্যাপ ওপেন করেছেন, দিনে ও রাতে তারা অ্যাপটি কতক্ষণ ব্যবহার করেছেন তার সব তথ্য মিলবে সহজেই। এর পাশাপাশি ব্যবহারকারীরা সাপ্তাহিক ব্যবহারের হিসাবের একটি নোটিফিকেশন পাবেন, সেটি মনিটর করা যাবে মাত্র একটি সেটিংস থেকে। এটি ব্যবহারকারীদের একটা নির্দিষ্ট সময়ের পর স্ক্রিন থেকে বিরতি নেয়ার জন্য মনে করিয়ে দেবে, যেটি তারা সেট করে নিতে পারবেন তাদের পছন্দ ও সুবিধা মতো।

এর পাশাপাশি টিকটক কমিউনিটির তরুণদের সদস্যদের জন্য সাপ্তাহিক ডিজিটাল সুস্থতার প্রম্পট চালু করছে। যখন কোনো ১৩ থেকে ১৭ বছর বয়সী ব্যবহারকারী দিনে ১০০ মিনেটের বেশি অ্যাপটিতে সময় ব্যয় করলে, পরের বার অ্যাপ ওপেন করার সময় তাদের স্ক্রিন টাইম লিমিট টুল প্রদর্শন করবে। নতুন এই ফিচারগুলোর মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের জন্য একটি নিরাপদ এবং ইতিবাচক অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করা টিকটক-এর মূল লক্ষ্য এবং এর পাশাপাশি এই জনগোষ্ঠীকে সর্বোত্তম বিনোদন দেয়া, যাতে করে তারা প্ল্যাটফর্মটির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারেন। এই টুল ব্যবহারকারীদের অ্যাপে ব্যয় করা নিরবচ্ছিন্ন সময়কে সীমাবদ্ধ করতে সাহায্য করবে।

টিকটক নতুন স্ক্রিন টাইম ম্যানেজমেন্ট টুলের কার্যকারিতাকে সমর্থনও করছে এবং তার কমিউনিটির নতুন নির্দেশিকা ব্যবহারে উৎসাহিত করছে। ‘কীভাবে আমি আমার পরিবার এবং বন্ধুদের সাথে আমার ডিজিটাল সুস্থতার প্রতিফলন করতে পারি?’ এই শিরোনামে প্ল্যাটফর্মটির সেফটি সেন্টারে নির্দেশিকাটি পাওয়া যাচ্ছে।

এই নির্দেশিকাটি টিকটক কমিউনিটিকে উৎসাহিত করে যে তারা কীভাবে অনলাইনে তাদের সময় কাটাতে পারে- তা টিকটক-এ হোক বা অন্যকোনো প্ল্যাটফর্মে। সেই সঙ্গে এটি তাদের জন্য একটি সীমা নির্ধারণ করে দিচ্ছে, যা ব্যবহারকারীদের সাহায্য করতে পারে। এই টুলগুলো ‘টিকটক’-এর ক্রমবর্ধমান বৈচিত্র্যময় বৈশ্বিক জনগোষ্ঠীকে আরও প্রসারিত করার আনা হয়েছে। সেই সঙ্গে এটি এমন এক প্রচেষ্টার অংশ যা ব্যবহারকারীকে নিজের মতো করে অভিজ্ঞতা তৈরি, তার প্রকাশ এবং উপভোগ করতে দিতে সহায়তা করবে। ডিজিটাল ওয়েলবিং-এর অধীনে গোপনীয়তা এবং সেটিংসে নতুন এই ফিচার পাওয়া যাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button