Technologyইনফরমেশন টেকনোলজি

সোলার কার: চার্জ ছাড়াই চলবে টানা ৭ মাস

তেল বাদেই চলবে যে গাড়ি

নেদারল্যান্ডের ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লাইটইয়ার সম্প্রতি বাজারে এনেছে নতুন ইলেকট্রিক গাড়ি। এই গাড়িটিকে ইলেকট্রিক গাড়ি না বলে সোলার কার বলাই ভালো। কেননা, এটাই কোম্পানির প্রথম সৌর শক্তি চালিত গাড়ি।

নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লাইটইয়ার জানিয়েছে, বাণিজ্যিকভাবে বিক্রি করার জন্য এই গাড়ি তৈরি করা হয়েছে। লাইটইয়ার জিরো মডেলের এই গাড়িতে থাকছে ৬০ কিলোওয়াট আওয়ারের ব্যাটারি প্যাক। এক চার্জে ৬২৫ কিলোমিটার ছুটবে গাড়িটি। এর মধ্যে ৬০ কিলোমিটার চলার শক্তি সৌর শক্তির মাধ্যমে পাবে এই গাড়ি।

carগাড়িটির সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ১৬০ কিলোমিটার। ০-১০০ কিলোমিটার গতি তুলতে সময় নেবে মাত্র ১০ সেকেন্ড।

এই গাড়ির মোটরে সর্বোচ্চ ১৭৪ পিএস শক্তি পাওয়া যাবে। এর চাকার মধ্যেই মোটর ব্যবহার করা হয়েছে। অনেকটা ইলেকট্রিক সাইকেলের হাব মোটরের মতো। কোম্পানির দাবি এক বছরে কোন খরচ না করেই ১১ হাজার কিলোমিটার চলতে পারবে গাড়িটি।

গাড়িটিতে ৫৪ বর্গফুট জায়গায় সোলার প্যানেল ব্যবহার হয়েছে। গাড়ির বনেট, ছাদ ও পেছনে সোলার প্যানেল রয়েছে। সূর্যের আলো থেকে শক্তি সংগ্রহ করে গাড়ি ব্যাটারি চার্জ করতে সাহায্য করবে প্যানেলগুলো।

carঅনন্য ডিজাইন ও প্রযুক্তি ব্যবহারের কারণে এই গাড়ি গোটা দুনিয়ার নজর কেড়েছে। সঠিক পরিস্থিতি থাকলে কোন ব্যক্তি যদি প্রতিদিন ৩৫ কিলোমিটার যাতায়াত করেন তবে ৭ মাস একটানা চার্জ না করে প্রতিদিন এই গাড়ি চালানো যাবে। যে সব দেশে ভালো সূর্যের আলো পাওয়া যায় না, সেই সব দেশে ২ মাস টানা এই গাড়ি চার্জ না করে প্রতিদিন ৩৫ কিলোমিটার চালানো সম্ভব হবে।

এই গাড়ি তৈরির জন্য ৭ বছর ধরে গবেষণার কাজ চলেছে। অবশেষে বাণিজ্যিকভাবে এই গাড়ি তৈরি সম্পূর্ণ হয়েছে।

২০১৯ সালে প্রথম এই গাড়ির কনসেপ্ট মডেল সামনে এসেছিল। সেই গাড়ির থেকে বাণিজ্যিক মডেলের খুব বেশি পার্থক্য দেখা যায়নি।

carঅ্যারোডাইনামিক্সের কথা ডিজাইনের সময় বিশেষভাবে মাথায় রেখেছিলেন ইঞ্জিনিয়াররা। থাকছে লম্বা ডিজাইন। কোম্পানির দাবি লাইটইয়ার জিরো বিশ্বের সবথেকে এনার্জি এফিশিয়েন্ট গাড়ি। প্রত্যেক ১০০ কিলোমিটার যাত্রার জন্য মাত্র ১০.৫ কিলোওয়াট আওয়ার শক্তি খরচ করে এই গাড়ি। হাইওয়ের গতির ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রয়োজ্য।

ডাচ কোম্পানির দাবি এই লঞ্চ গাড়ি দুনিয়াকে ভবিষ্যতের দিশা দেখাবে। শিগগিরই গাড়িটি বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন শুরু হবে। এবছরের নভেম্বর মাস নাগাদ ক্রেতার হাতে পাবেন সোলার ইলেকট্রিক কার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button