MOBILES LEAKSSmartphone News

নতুন টেকনো স্পার্ক ৯টি – ১৫ হাজার টাকায় সেরা ফোন?

মূল্যস্ফীতির এই সময়ে টেকনো নিয়ে এলো টেকনো স্পার্ক ৯টি

দেশের স্মার্টফোন মার্কেটে টেকনো এর বর্তমান অবস্থান বেশ ভালো বলা চলে। মূল্যস্ফীতির এই সময়ে টেকনো নিয়ে এলো টেকনো স্পার্ক ৯টি যা বর্তমান সময়ের বিচারে ১৫হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোন হওয়ার যোগ্যতা রাখে। চলুন জেনে নেওয়া যাক টেকনো স্পার্ক ৯টি সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিজাইন ও ডিসপ্লে

টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটির ডিজাইন যে কারো পছন্দ হতে বাধ্য। যদিও এই বাজেট সেকশনে ফোনের ডিজাইন বিবেচনায় নেওয়া খুব একটা সহজ না। কিন্তু টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটির ডিজাইন বেশ অনন্য ও অসাধারণ বলতে হবে। টেক্সচারড ব্যাক এর এই ফোনটির ফ্রেমে ম্যাট মেটাল ফিনিশ দেওয়া হয়েছে যা আবারো এর দাম বিবেচনায় অসাধারণ বিষয়।

টেকনো স্পার্ক ৯টি এর ব্যাক ক্যামেরা মডিউলে চারটি ফ্ল্যাশ রয়েছে যা লো-লাইট কন্ডিশনে ভালো ছবি তুলতে সাহায্য করবে। রয়েছে আইপিএক্স২ স্প্ল্যাশ রেজিস্ট্যান্ট রেটিং যা ফোনটিকে চ্যালেঞ্জিং কন্ডিশন থেকে রক্ষা করবে। একাধিক কালারে ফোনটি দেশের বাজারে পাওয়া যাবে।

টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। ৬.৬ইঞ্চির ফুল এইচডি+ এলসিডি ডিসপ্লে রয়েছে ফোনের ফ্রন্টে। আরো রয়েছে ৯০হার্জ রিফ্রেশ রেট যা বর্তমানে সকল বাজেট ফোনের জন্য স্ট্যান্ডার্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০ঃ৯ এসপেক্ট রেশিও এর স্পার্ক ৯টি এর বেজেল বেশ কমই বলা চলে।

ক্যামেরা

টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটির হাইলাইটিং ফিচার হলো এর ৫০মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ। ৫০মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সরের বড় এপার্চারের কারণে কম আলোতেও ভালো ছবি তুলতে পারবে এই ক্যামেরা। এছাড়া সুপার নাইট মোড ব্যবহার করে রাতের বেলায়ও ভালো ছবি তোলা যবে। এছাড়া বিউটি, এইচডিআর, টাইমল্যাপ্স ও স্লো মোশন এর মত অন্যসব ক্যামেরা ফিচার তো থাকছেই।

মেইন সেন্সরের পাশাপাশি ২মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেইট ও একটি এআই লেন্স রয়েছে ফোনের ব্যাকে। মজার ব্যাপার হলো ফোনের ব্যাকে থাকা এই এআই লেন্সের কল্যাণে বোকেহ ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে যা সাধারণত দামি ফোনগুলোতে থাকা একটি ফিচার। এছাড়া সফটওয়্যার এর সাহায্যে ১০এক্স পর্যন্ত জুম করা যাবে ফোনটিতে। আরো রয়েছে এআর স্টিকার, সিন এনহেঞ্চার,  স্মাইল শট এর মত মজাদার সব ফিচার।

ফোনের ফ্রন্টে ৮মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা রয়েছে। রয়েছে ডুয়াল ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ যার সাহায্যে যেকোনো পরিস্থিতিতে ভালো সেল্ফি তোলা যাবে।

টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটিতে ৪জিবি র‍্যাম রয়েছে, সাথে যুক্ত হয়েছে আরো ৩জিবি ভার্চুয়াল র‍্যাম। এই বাড়তি র‍্যামের ফলে প্রায় ৪৩% বুস্ট দেখা যাবে অ্যাপ লঞ্চিং এর ক্ষেত্রে। এর ফলে ফোনে অ্যাপ লঞ্চ করা কিংবা মাল্টিটাস্কিং করার অভিজ্ঞতা বেশ স্মুথ হবে।

মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৭ দ্বারা চলবে টেকনো স্পার্ক ৯টি। ২.৩গিগাহার্জ ক্লক স্পিডের এই অক্টা-কোর প্রসেসর হেলিও জি৩৫ থেকে কিছুটা শক্তিশালী। এই চিপসেটে মিডিয়াটেক এর হাইপারইঞ্জিন প্রযুক্তি ব্যবহৃত হয়েছে যা সাধারণ ব্যবহারে স্মুথ অভিজ্ঞতা প্রদান করে। আবার সুপার বুস্ট ফিচার এর মাধ্যমে ফোনে থাকা জাংক ফাইল মুহুর্তে ডিলিট করা যাবে। স্টোরেজ থাকছে ৬৪জিবি এর, যা আবার এসডি কার্ড ব্যবহার করে ৫১২জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নেওয়া যাবে।

টেকনো স্পার্ক ৯টি চলবে অ্যান্ড্র‍য়েড ১১ ভিত্তিক হাইওএস ৭.৬ দ্বারা। ফোন ক্লোনার, এন্টি-থেফট এলার্ম, ভল্ট ২.০, স্টোরি এলবাম, ভয়েস চেঞ্জার, কিডস মোড, ইত্যাদি কাজের ও মজার সব ফিচারে ভরা এই কাস্টম অপারেটিং সিস্টেম।

ব্যাটারি

টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটিতে ৫০০০মিলিএম্প এর ব্যাটারি রয়েছে। ১৮ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জার পেয়ে যাবেন ফোনের বক্সে। ফোনের সফটওয়্যার বেশ লাইটওয়েট হওয়ায় লম্বা সময় ব্যাটারি ব্যাকাপ পাওয়া যাবে ফোনটি থেকে।

দাম

শুধুমাত্র ৪জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে টেকনো স্পার্ক ৯টি। টেকনো স্পার্ক ৯টি এর দাম ১৪,৯৯০টাকা।

পোস্টের টাইটেল ও শুরুতে আমরা বলেছি বর্তমান বাজারে এই ফোনটি ১৫হাজার টাকার মধ্যে সেরা ফোন। এখন এই বিষয়ে অনেকে দ্বিমত পোষণ করতে পারেন ফোনের চিপসেট এর কারণে। চিপসেট ছাড়া টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনের অন্য কোনো কমতি নেই। তবে বর্তমান স্মার্টফোন মার্কেটের অবস্থা এবং স্পার্ক ৯টি এর নজরকাড়া ডিজাইন ও অসাধারণ ক্যামেরা পারফরম্যান্স এর বদৌলতে চিপসেটে কমতির বিষয়টি বিবেচনায় নেওয়াই যায়। এসব বিষয় বিবেচনা করলে টেকনো স্পার্ক ৯টি ফোনটিকে ১৫হাজার টাকার মধ্যে সেরা ফোন বলাই যায়। আপনার মতামত কমেন্টে জানানোর অনুরোধ রইল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button