নেটওয়ার্কিং

টেলিটকের ৫জি নিয়ে নতুন তথ্য

কখন টেলিটক ৫জি চালু হবে?

বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশে খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে পঞ্চম প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক বা ফাইভ জি সেবা। ইতিমধ্যে দেশে ৫জি সুবিধা বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর, টেলিটক।

‘ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় টেলিটকের নেটওয়ার্কে বাণিজ্যিকভাবে ৫জি প্রযুক্তি চালুকরণ’ নামক একটি প্রকল্পের আওতায় ২৩৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ব্যায়ে ফাইভ জি সেবা চালু করতে যাচ্ছে টেলিটক। খুব শীঘ্রই ঢাকার ‘গুরুত্বপূর্ণ’ আবাসিক এলাকা ও সরকারি অফিসের জন্য ৫জি সেবা চালু করার আশা ব্যাক্ত করেছে টেলিটক।

উল্লেখিত প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) এর মঙ্গলবারের সভায় উপস্থাপন করার কথা রয়েছে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক কখন নাগাদ বাংলাদেশে টেলিটক এর ৫জি সেবা বানিজ্যিকভাবে চালু হতে পারে ও কোন কোন এলাকাগুলো প্রথমে এই ৫জি সুবিধা পাবে।

কখন টেলিটক ৫জি চালু হবে?

কিছু মাস আগে পরিকল্পনা কমিশনের মূল্যায়ন কমিটি অর্থাৎ পিইসি এর সভায় উক্ত প্রকল্পের কথা প্রথম তোলা হয়। বিশ্বের অন্য দেশের সাথে তাল মিলিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা মাথায় রেখে উক্ত প্রকল্পের অনুমোদনের বিষয়টি বিবেচনায় রাখা হয়েছে।

টেলিটক ২০২৩সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের উল্লেখিত প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্পের অর্থ আসবে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে। প্রদত্ত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের শেষ শুরু হলে ২০২৪ সালের শুরুতে টেলিটজ ফাইভ জি সেবা দিতে পারবে বলে আশা করা যায়।

যেসব স্থানে টেলিটক ৫জি সেবা পাওয়া যাবে

কোন কোন স্থানে টেলিটক এর ফাইভ জি সেবা চালু হবে সে বিষয়ে টেলিটক এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাহাব উদ্দিন জানান যে প্রথমে ঢাকার সরকারি ও বেসরকারি গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ও স্থাপনাগুলোতে ফাইভ জি নেটওয়ার্ক নিয়ে আসা হবে।

স্বভাবতই প্রথমে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় অবস্থিত গণভবন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এর পাশাপাশি অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা আনা হবে টেলিটক ফাইভ জি নেটওয়ার্ক এর আওতায়। উল্লেখিত স্থানসমূহ ছাড়াও আবাসিক এলাকা মোহাম্মদপুর, শেরে বাংলা নগর, বনানী, গুলশান, ক্যান্টনমেন্ট, উত্তরা থানা, ইত্যাদি স্থানে টেলিটক ৫জি সেবা নিয়ে আসবে।

এছাড়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকার বঙ্গভবন, সচিবালয়সহ মতিঝিল, রমনা, শাহবাগ ও ধানমন্ডি এলাকায় অবস্থিত গুরুত্বপূর্ণ ও বাণিজ্যিক স্থাপনাগুলোতে টেলিটক এর ফাইভ জি সেবা চালু করা হবে। মার্চ মাসের ৩১ তারিখ বিটিআরসি ৫জি তরঙ্গ নিলাম করে, যা থেকে ১ হাজার ৬৮০ কোটি টাকা দামে ৩০ মেগা হার্টজ ফাইভ জি তরঙ্গ কেনে টেলিটক।

উল্লেখ্য যে ফাইভ জি প্রযুক্তির সাথে সম্পর্কিত যন্ত্রপাতির দাম ফোর জি প্রযুক্তিতে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতির চেয়ে বেশি। একই কারণে ফাইভ জি নেটওয়ার্ক চাইলেই খুব দ্রুত সম্প্রসারণ সম্ভব নয়, বরং এটি একটি সময়সাপেক্ষ ব্যয়বহুল একটি প্রক্রিয়া।

উল্লেখিত প্রকল্পের আওতায় ঢাকা শহরে থাকা টেলিটক এর ২০০টি ৪জি সাইটে ৫জি প্রযুক্তির জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সংযোজন করে ফাইভ জি নেটওয়ার্ক তৈরির ব্যবস্থা করা হবে। টেলিটক এর পাশাপাশি সম্প্রতি ৫জি প্রযুক্তি নিয়ে কাজ শুরু করেছে গ্রামীণফোন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button