Technology

ফ্রি Wi-fi ব্যবহার খুব সহজ যে বিষয়টি মাথায় রাখবেন

কী করে জানবেন কোথায় ফ্রি ওয়াইফাই?

কোনও কিছু যদি ফ্রিতে পাওয়া যায়, তাহলে কে পয়সা খরচা করতে চাইবে? আর ফ্রি-এর বিষয়টি যখন এই বিষয়টি ইন্টারনেট ডাটার হয়, তখন তো সোনায় সোহাগা। টেলিকম অপারেটররা বিভিন্ন রকমের রিচার্জ প্ল্যান অফার করেন। কোম্পানি ডেলি ডাটা প্ল্যান থেকে নিয়ে মান্থলি বা ইয়ারলি প্ল্যান পর্যন্ত অফার করে। কোনও কোম্পানি এর উপরে আবার ইউজারদের ইন্টারনেট শেষ হয়ে যাওয়ার পরও ডাটা দেয়। যদিও তা অনেক স্লো কাজ করে। তারপরও যদি জরুরি ডেটা বা ইন্টারনেট ব্যবহার করার দরকার হয়, আর আশপাশে দোকান বা রিচার্জের অপশন না থাকে, কিংবা পকেটমানি শেষ হয়ে গিয়ে থাকে, তাহলে তাদের জন্য ফ্রি ওয়াইফাই ব্যবহারের বন্দোবস্ত রয়েছে। তখন আপনি পাবলিক হটস্পট এর সাহায্যে আপনি বিনা পয়সায় খরচা করে ইন্টারনেট চালা

কী করে জানবেন কোথায় ফ্রি ওয়াইফাই?

ফ্রি ওয়াইফাই প্রত্যেক জায়গায় পাওয়া যায় না। বরং কিছু বিশেষ জায়গা, যেখানে আপনি এর লাভ তুলতে পারবেন। এমনিতে বেশ কিছু রেলওয়ে স্টেশনে এবং এয়ারপোর্টে ফ্রি ওয়াইফাই দেওয়া হয়। যেখানে আপনি গিয়ে খুব সহজেই ফোন কানেক্ট করতে পারবেন। সেখানে পাসওয়ার্ড প্রোটেকশনও থাকে না। থাকলেও তা স্টেশন চত্বরে জানিয়ে দেওয়া হয় বা কোথাও লিখে রাখা হয় যাতে সবাই পেতে পারে।

কিন্তু হতে পারে যে আপনি স্টেশন বা এয়ারপোর্ট চত্বর থেকে দূরে থাকেন। তাহলে কীভাবে জানবেন কোথায় যেতে হবে? কিছু অ্যাপ রয়েছে, যেগুলি আপনাকে পাবলিক ওয়াইফাই পর্যন্ত পৌঁছাতে সাহায্য করবে।

এমনই একটি ফিচার, ফেসবুক-এ পাওয়া যায়।

১. আপনি ফেসবুকের অফিশিয়াল অ্যাপে লগ-ইন করবেন।

২. সেখানে টপ, রাইট কর্নারে আপনি হ্যামবার্গার মেনু দেওয়া হবে। যেখানে ক্লিক করে আপনি Setting and Privacy অপশন দেখতে পাবেন।

৩. আপনাকে এই অপশনের উপর ক্লিক করতে হবে এবং এখানে আপনি Find Wi-Fi  অপশন পাবেন। এর উপরে ক্লিক করতে হবে। এভাবে আপনি আশপাশে উপস্থিত ফ্রি পাবলিক ওয়াইফাই সম্পর্কে জানতে পারবেন।

কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে

ভারতে অনেক বেশি ফ্রি-ওয়াইফাই অপশন বেশি পাওয়া যায় না। এখানে বেশিরভাগ অপশন রেলওয়ে এবং এয়ারপোর্টেই পাওয়া যায়। কিছু পাবলিক হটস্পট এর মধ্যে পাওয়া যায়। কিন্তু তাতে আপনাকে মার্চেন্ট লগ ইন করতে হয়। রেলওয়ে স্টেশনে আপনি টাইম লিমিটের সঙ্গে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। কিন্তু কিছু পাবলিক ওয়াইফাই যা আপনাকে ওয়াইফাইয়ের টোপ দিতে পারে। ফ্রি ইন্টারনেটের লোভ দেখিয়ে আপনাকে জালে ফাঁসাতে পারে এই পরিস্থিতিতে আপনি পাবলিক ওয়াইফাই ইউজ করার সময় নেটওয়ার্কের বিষয়টি মাথায় রাখবেন। না হলে আপনার পার্সোনাল ডাটা চুরি করে নিতে পারে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button