কম্পিউটারের ইতিহাস- The History of Computer Part 09

Posted on

বাইনারি সিস্টেম। Binary System

কম্পিউটারের তথ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং সংরক্ষণের কাজ সম্পাদিত হয় তড়িৎ প্রবাহের সাহায্যে। কম্পিউটারের মাদার বাের্ডে হাজার হাজার ইলেকট্রনিক সার্কিট রয়েছে। সার্কিটগুলাে সুইচ পদ্ধতিতে পরস্পরের সঙ্গে যুক্ত। সার্কিটগুলাে দুটি মাত্র অবস্থায় থাকতে পারে, হয় বন্ধ না হয় চালু। বন্ধ হচ্ছে বিযুক্ত এবং চালু হচ্ছে যুক্ত। সুইচ বন্ধ (off) থাকলে সার্কিট সম্পূর্ণ হয় না। সার্কিট সম্পূর্ণ না হলে বিদ্যুৎপ্রবাহ চলাচল করতে পারে না। সুইচ চালু (On) থাকলে সার্কিট সম্পূর্ণ হয় এবং বিদ্যুৎ প্রবাহ চলাচল করতে পারে। অর্থাৎ বিদ্যুৎ প্রবাহ আছে (On) এবং বিদ্যুৎ প্রবাহ নেই (Off), এই দুটি মাত্র শর্তে কম্পিউটার যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করে থাকে। এ জন্যে কম্পিউটারের সকল কাজের জন্যে বাইনারি পদ্ধতি (Binary System) ব্যবহার করা হয়। 

বিট, বাইট। Bit,Byte

কম্পিউটার যাবতীয় তথ্য প্রক্রিয়াকরণ ও সংরক্ষণের কাজ করে বাইনারি পদ্ধতিতে। বাইনারি পদ্ধতিতে যাবতীয় গণনার কাজ করা হয় শূন্য (০) এবং এক (১) সংখ্যা ব্যবহার করে। কম্পিউটার বিদ্যুৎ প্রবাহ থাকা অবস্থাকে এক (১) এবং বিদ্যুৎ প্রবাহ বন্ধ অবস্থাকে শূন্য (০) হিসেবে ধরে যাবতীয় কর্ম সম্পাদন করে থাকে। প্রতিটি শূন্য (০) এবং এক (১) কে একটি বাইনারি ডিজিট’ (Binary Digit) বা বিট’ (Bit) ধরা হয়। বিট হচ্ছে কম্পিউটারের তথ্য পরিমাপের সর্বনিম্ন একক। ৮ বিটে হয় ১ বাইট (Byte)। প্রতিটি অক্ষর, সংখ্যা, দাড়ি, কমা, সেমিকোলন ইত্যাদি চিহ্ন গঠিত হয় ১ বাইটে (৮ বিট}। বাইটের পরবর্তী একক হচ্ছে ‘কিলােবাইট’। ১০২৪ বাইটে হয় ১ কিলােবাইট; কিলােবাইট (Kilobyte) বােঝাতে সংক্ষেপে KB অথবা শুধু K লেখা হয়। কিলােবাইটের পরবর্তী একক হচ্ছে মেগাবাইট (Megabyte)। ১০২৪ কিলােবাইটে হয় ১ মেগাবাইট । মেগাবাইটকে সংক্ষেপে MB লেখা হয়। মেগাবইটের পরবর্তী একক হচ্ছে গিগাবাইট (Gigabyte)। ১০২৪ মেগাবাইটে হয় ১ গিগাবাইট। গিগাবাইটকে সংক্ষেপে GB লেখা হয়। কম্পিউটারের রম, র্যাম, হার্ড ডিস্ক ইত্যাদির ধারণ ক্ষমতা এবং স্মৃতির পরিমাণ বােঝানাে হয় কিলােবাইট, মেগাবাইট গিগাবাইট ইত্যাদি এককের হিসেবে। একটি প্রােগ্রাম বা ডকুমেন্ট-এর আয়তন বােঝানাের জন্যে কিলােবাইট, মেগাবাইটের একক ব্যবহার করা হয়। যেমন: একটি ৮০০ কিলােবাইট প্রােগ্রামের চেয়ে ১০/১৫ মেগাবাইটের প্রােগ্রাম অনেক বড় আকারের প্রােগ্রাম। তেমনি ১০০ কিলােবাইটের একটি ডুকমেন্টের লিখিত বিষয়বস্তু এর চেয়ে ২০০ কিলােবাইটের ডকুমেন্টের আকার স্বাভাবিকভাবেই দ্বিগুণ বুঝতে হবে। 

Blessed Folder মেকিনটোশের একাধিক সিস্টেম ফোল্ডারের মধ্যে সক্রিয় সিস্টেম ফোল্ডারটিকে ব্লেসড় ফোল্ডার বলে। 

Boldface সাধারণ অক্ষরের তুলনায় মােটা অক্ষরকে ‘বােল্ড’ (Bold) টাইপ বা অক্ষর বলা হয়। বােন্ডফেস বলতে মােট অক্ষরকেই বােঝানাে হয়। 

ব্রিজ। Bridge দুই বা ততােধিক নেটওয়ার্কিং সিস্টেমকে সংযুক্ত করার যান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ব্রিজ বলা হয়। ব্রিজের সাহায্যে সংযুক্ত করা নেটওয়ার্কিংয়ের একেকটি অংশকে বলা হয় ‘জোন’ (Zone) বা অঞ্চল। 

বাল্ক স্টোরেজ। Bulk Storage কম্পিউটারের তথ্য ধারণ বা সংরক্ষণ করার জন্যে তৈরি অধিক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন। যন্ত্রকে বাল্ক স্টোরেজ’ যন্ত্র বা “ডিভাইস’ বলা হয়। বাঙ্ক স্টোরেজ-এর সাধারণ অর্থ হচ্ছে বিপুল মজুদ। বাল্ক স্টোরজ ডিভাইসের ধারণ ক্ষমতা পরিমাপ করা হয় টেরাবাইট’ (Terabyte) হিসেবে। 

বান্ডলড সফটওয়্যার। Bundled Software কম্পিউটার সিস্টেমের সাথে একইমূল্যে যেসব সফটওয়্যার প্রদান করা হয় তাকে বান্ডলড় সফটওয়্যার’ বলে। 

বাটন। Button যদিও এর অর্থ বােম। এটি শার্ট প্যান্টের বােতাম নয়, সফটওয়্যারের ডায়লগ বক্সের বােতাম বা বাটন। 

ক্যাবল। Cable 

ক্যাবল’ অর্থ তার। সাধারণত বৈদ্যুতিক কাজে ব্যবহৃত বিশেষ ধরনের তারকেই ক্যাবল’ বলা হয়। কম্পিউটারের সঙ্গে প্রিন্টার, মােডেম, মাউস, কী-বাের্ড, এক্সটারনাল হার্ড ডিস্ক, স্ক্যানার ইত্যাদি পেরিফেরাল ডিভাইসের সংযােগ দেওয়া এবং নেটওয়ার্কের জন্যে বিভিন্ন প্রকার ক্যাবল বা তার ব্যবহার করা হয়। সব ক্যাবল দিয়ে সব রকমের সংযােগ বা নেটওয়র্কের কাজ হয় না। নির্দিষ্ট সংযােগ ও নেটওয়ার্কের জন্যে নির্দিষ্ট ধরনের ক্যাবল (Cable) ব্যবহার করতে হয়। 

ক্যাড।CAD Computer Aided Design-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে CAD. CAD সফটওয়ার বা প্রােগ্রামের সাহায্যে স্থাপত্য ও যন্ত্রকৌশলসহ বিভিন্ন প্রকার বৃহৎ, জটিল ও সূক্ষ্ম নকশা প্রণয়নের কাজ করা হয়। 

সিডি। CD 

Compact Disk-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে CD (সিডি)। ফ্লপি ডিস্ক যেমন কম্পিউটারের ইন্টারনাল অথবা এক্সটারনাল ফ্লপি ডিস্ক ড্রাইভে ঢুকিয়ে কাজ করতে হয়, সিডি (CD)-কেও তেমনি কম্পিউটারের ইন্টারনাল অথবা এক্সটারনাল সিড়ি (CD) ড্রাইভে ঢুকিয়ে কাজ করতে হয়। সিডি’র আকার ৫ ইঞ্চি ফ্লপি ডিস্কের মতাে হলেও একটু পুরাে এবং দেখতে অত্যন্ত সুন্দর। কিন্তু সৌন্দর্যই এর মূলকথা নয়। সিডি’র ধারণ শতাধিক ফ্লপি ডিস্ক-এর চেয়ে অনেক অনেক গুণ বেশি। যেমন : একটি সিডি (CD বা কমপ্যাক্ট ডিস্ক (Compact Disk)-এ এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটেনিকার সবগুলাে ভলুম অনায়াসে ধারণ করতে পারে। 

চিপ। Chip 

একটি মাত্র সেমিকন্ডাকটিং বস্তু, সাধারণত সিলিকনে, একটি সম্পূর্ণ ইলেকট্রনিক সার্কিট সন্নিবেশিত করে যে সমন্বিত সার্কিট (Integrated Circuit) তৈরি করা হয় তাকেই চিপ’ বলা হয়। সিলিকনে সন্নিবেশিত করা হয় বলে একে সিলিকন চিপ’ বলেও উল্লেখ করা হয়। 

FICTG Teta i Client Server টাইম শেয়ারিং (Time Sharing) নেটওয়ার্ক এবং রিসাের্স শেয়ারিং (Resource Sharing) নেটওয়ার্ক পদ্ধতি দুটির সীমাবদ্ধতা ও অসুবিধেগুলাে দূর করে আরাে অগ্রসর নেটওয়ার্ক পদ্ধতি হিসেবে তৈরি করা হয়েছে ক্লায়েন্ট সার্ভার নেটওয়ার্ক। ক্লায়েন্ট সার্ভার নেটওয়ার্কে সার্ভার এবং ওয়ার্ক স্টেশন উভয় কম্পিউটারেই নিজস্ব CPU এবং Memory-এর সাহায্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ কাজের সুযােগ রয়েছে। উভয় কম্পিউটারেই কাজ করা হয়। এ নেটওয়ার্কে সার্ভার হিসেবে মেইনফ্রেম, মিনিফ্রেম এবং উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন পার্সোনাল কম্পিউটার ব্যবহার করা যেতে পারে। ওয়ার্ক স্টেশনগুলােকে সার্ভারের ক্লায়েন্ট (Client) হিসেবে অভিহিত করা হয়। এ নেটওয়ার্ক পদ্ধতিকে বলা হয় ক্লায়েন্ট সার্ভার আর্কিটেকচার’ (Client Server Architecture) 1 

কোড়। Code কম্পিউটারের প্রােগ্রাম তৈরি করার জন্যে ব্যবহৃত নির্দেশমালাকে ‘কোড়’ বলা হয়। ভিন্ন ভিন্ন প্রােগ্রামের জন্যে ভিন্ন ভিন্ন কোড বা নির্দেশমালা বিন্যস্ত করা হয় । 

কম্পাটিবল। Compatible 

যে সব কম্পিউটারে কোনাে প্রকার সমস্যা ছাড়া যে প্রােগ্রামগুলাে চলে এবং যে সব যান্ত্রিক সংযােগ দিয়ে কাজ করা যায়, সেই সব প্রােগ্রাম এবং যন্ত্রাদিকে ঐ কম্পিউটারের জন্যে কম্পাটিবল’ বলা হয়। 

কনফিগারেশন। Configuration কোনাে যন্ত্রের গঠন বিন্যাস বা সমন্বয়ের ধরনকে ঐ যন্ত্রের কনফিগারেশন” বলা হয়। যেমন : কম্পিউটারের মাদার বাের্ডের গঠন বিন্যাস। আবার বিভিন্ন হার্ডওয়্যারের সমন্বিত বিন্যাসকেও একসঙ্গে কনফিগারেশন বলা হয়। 

কনটোল কোড়। Control Code লেখালেখি বা টেক্সট ফাইলে কিছু সংকেত বা বর্ণ থাকে, যা মুদ্রিত হয় না। এ সব বর্ণ বা সংকেত প্রিন্টারে মুদ্রণের বৈশিষ্ট্য পরিবর্তনের জন্যে কাজ করে থাকে। এ সব সংকেত বা বর্ণকে কনট্রোল কোড বলে। যেমন ; এ সব সংকেত বা বর্ণের নির্দেশ অনুযায়ী প্রিন্টার মুদ্রিত অক্ষর বা শব্দের বােল্ড, ইটালিক ইত্যাদি বৈশিষ্ট্যে মুদ্রিত করে। কিন্তু এ কোডগুলাে মুদ্রিত হয় না। 

সি.পি.ইউ.। CPU. 

Central Processing Unit-এ সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে C.P.U.। নামেই বােঝা যায়, কম্পিউটারের যাবতীয় কাজ সম্পাদনের জন্যে কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করে থাকে এই যন্ত্রাংশটি। স্থায়ী স্মৃতি (ROM), অস্থায়ী স্মৃতি (RAM), গাণিতিক যুক্তি (Arithmatic Logic Unit = ALU) সমন্বয়ে CPU বা কেন্দ্রীয় প্রক্রিয়াকরণ ইউনিট’ গঠিত। 

সি.আর.টি। CRT

Cathod Ray Tube-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে C.R.T। কম্পিউটারে কাজ করার সময় টেলিভিশনের পর্দার মতাে ছােট পর্দায় কী কাজ করা হচ্ছে দেখা যায়। এ পর্দাকেই বলা হয় C.R.T. টেলিভিশনের পর্দাকেও C.R.T. বলা হয়। পর্দা বা CR.T,-সহ পুরাে বাক্সটিকে একত্রে বলা হয় মনিটর’ (Monitor)। 

ডি.এ.এস.ডি – DASD: Direct Access Storage Device-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে D.A.S.D. কম্পিউটারের চুম্বকীয় (Magnetic) ডিস্ককেই ডি.এ.এস.ডি. (DASD) বলা হয়। 

ডাটা। Data যে কোনাে প্রকার তথ্যকে ‘ডাটা’ বলা হয়। এটা সাধারণ লেখালেখি হতে পারে, হিসাব-নিকাশ হতে পারে, ছবি হতে পারে এবং নকশা হতে পারে। কম্পিউটারের প্রােগ্রাম ব্যবহার করে যে সব তথ্য গ্রহণ, প্রক্রিয়াকরণ ও ফলাফল প্রদান করা হয়, সে সব তথ্যই ডাটা হিসেবে বিবেচিত হয়। কম্পিউটার সর্বনিম্ন ১ বিট পর্যন্ত তথ্য বুঝতে পারে। ১ বিট হচ্ছে একটি অক্ষরের ৮ ভাগের ১ ভাগ। অর্থাৎ ৮ বিট তথ্য দিয়ে তৈরি হয় একটি অক্ষর। ৮ বিটে হয় ১ বাইট । 

ডিবেজ। dBase 

আই.বি.এম. পিসির একটি জনপ্রিয় ডাটাবেজ প্রােগ্রাম। Ashton-Tate ১৯৮১ খ্রি. dBase বাজারজাত করে। ১৯৮৪ খ্রি. dBase III এবং ১৯৮৬ খ্রি. dBase-III+ বাজারে আসে। এরই মধ্যে dBase III-এর ক্লোন Aston-Tate-এর বাজার অনেকখানি দখল করে নেয়। Aston-Tate ১৯৮৮ খ্রি. আরাে শক্তিশালী প্রােগ্রাম dBase IV বাজারজাত করেছে। 

flatst I debug কোনাে প্রােগ্রামের ত্রুটি সনাক্ত করা ও সংশােধন করাকেই ডিবাগিং (Debugging) বলা হয়। ত্রুটি সনাক্তকরণ ও সংশােধনের জন্যে প্রােগ্রামারদের সুবিধার্থে প্রােগ্রামের কম্পাইলারে ইন্টারপ্রেটারে অন্তর্ভুক্ত ইউটিলিটি প্রােগ্রাম। সফটওয়্যারকে বলা হয় ডিবাগার (Debugger)। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *