প্রশ্ন ও উত্তর

গণিত বিষয়ক প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন-১. সসীম সেট কাকে বলে?
উত্তর : যে সেটের উপাদান সংখ্যা সুনির্দিষ্ট অর্থাৎ গণনাযোগ্য তাকে সসীম সেট বলে।

প্রশ্ন-২. যৌগিক ঘনবস্তু কাকে বলে?

উত্তর : দুইটি ঘনবস্তুর সমন্বয়ে গঠিত ঘনবস্তুকে যৌগিক ঘনবস্তু বলে।

প্রশ্ন-৩. ভেনচিত্র বলতে কি বুঝ?
উত্তর : সেট ও সেটের উপাদানগুলোকে বিভিন্ন জ্যামিতিক আকৃতির মাধ্যমে প্রকাশই হলো ভেনচিত্র।

প্রশ্ন-৪. অসীম বা অনন্ত ধারা কাকে বলে?
উত্তর : যে ধারার রাশি বা পদের সংখ্যা নির্দিষ্ট নয় তাকে অসীম বা অনন্ত ধারা বলে।

প্রশ্ন-৫. সেট কী?

উত্তর : বাস্তব জগত বা চিন্তা জগতের বস্তুর যেকোনো সুনির্ধারিত সংগ্রহকে সেট বলা হয়।

প্রশ্ন-৬. কার নাম অনুসারে ভেনচিত্রের নামকরণ করা হয়?

উত্তর : বিখ্যাত ইংরেজ তর্কশাস্ত্রবিদ জন ভেন এর নামানুসারে ভেনচিত্রের নামকরণ করা হয়।

প্রশ্ন-৭. আয়তাকার ঘনবস্তু কাকে বলে?
উত্তর : তিন জোড়া সমান্তরাল আয়তাকার সমতল বা পৃষ্ঠ দ্বারা আবদ্ধ ঘনবস্তুকে আয়তাকার ঘনবস্তু বলে।

প্রশ্ন-৮. সমান্তরাল সরলরেখা কি?

উত্তর : দুইটি একতলীয় সরলরেখাকে অসীম পর্যন্ত বর্ধিত করলে যদি পরস্পর ছেদ না করে অর্থাৎ যদি এদের কোনো সাধারণ বিন্দু না থাকে, তবে এদের সমান্তরাল সরলরেখা বলা হয়।

প্রশ্ন-৯. অন্বয়ের ডোমেন কী?

উত্তর : কোনো অন্বয়ের ক্রমজোড়গুলোর প্রথম উপাদানসমূহের সেটকে উক্ত অন্বয়ের ডোমেন বলা হয়।

প্রশ্ন-১০. অন্বয়ের রেঞ্জ কী?

উত্তর : কোনো অন্বয়ের ক্রমজোড়গুলোর দ্বিতীয় উপাদানসমূহের সেটকে উক্ত অন্বয়ের রেঞ্জ বলা হয়।

প্রশ্ন-১১. অন্বয় কী?

উত্তর : যদি A ও B দুইটি সেট হয় তবে সেটদ্বয়ের কার্তেসীয় গুণজ A × B সেটের অন্তর্গত ক্রমজোড়গুলোর অশূন্য উপসেট R-কে A সেট হতে B সেটের একটি অন্বয় বলা হয়।

প্রশ্ন-১২. লেখচিত্র কী?

উত্তর : ফাংশনের চিত্ররূপকে লেখচিত্র বলে।

প্রশ্ন-১৩. কখন ত্রিভুজ আঁকা সম্ভব নয়?

উত্তর : ত্রিভুজের যেকোনো দুই বাহুর সমষ্টি এর তৃতীয় বাহু অপেক্ষা বৃহত্তর না হলে।

প্রশ্ন-১৪. ত্রিভুজের ভূমি বলতে কী বুঝ?

উত্তর : যে রেখাংশের উপর ত্রিভুজ দন্ডায়মান তাকে ত্রিভুজের ভূমি বলা হয়।

প্রশ্ন-১৫. এক-এক ফাংশন কি?

উত্তর : যদি কোনো ফাংশনের অধীনে এর ডোমেনের ভিন্ন ভিন্ন সদস্যের ছবি সর্বদা ভিন্ন হয় তবে ফাংশনটিকে এক-এক ফাংশন বলা হয়।

প্রশ্ন-১৬. বৃত্ত কী?

উত্তর : একটি নির্দিষ্ট বিন্দুকে কেন্দ্র করে সমদূরবর্তী সকল বিন্দুর সঞ্চারপথকে বৃত্ত বলে।

প্রশ্ন-১৭. অতিভুজ কাকে বলে?

উত্তর : সমকোণী ত্রিভুজের সমকোণের বিপরীত বাহুকে অতিভুজ বলে।

প্রশ্ন-১৮. সমতল বলতে কি বুঝায়?
উত্তর : কোনো তলের উপরস্থ যে কোনো দুইটি বিন্দুর সংযোজক সরলরেখা সম্পূর্ণরূপে ঐ তলের উপর অবস্থিত হলে, ঐ তলকে সমতল (Plane surface) বলা হয়।

প্রশ্ন-১৯. স্বাভাবিক সংখ্যা বা ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যা কাকে বলে?
উত্তর : 1, 2, 3, 4, ……..  সংখ্যাগুলোকে স্বাভাবিক সংখ্যা বা ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যা বলে।

প্রশ্ন-২০. ঋণাত্মক পূর্ণসংখ্যা কাকে বলে?

উত্তর : …….., -4, -3, -2, -1 সংখ্যাগুলোকে ঋণাত্মক পূর্ণসংখ্যা বলে। অর্থাৎ (-) চিহ্নযুক্ত পূর্ণসংখ্যাকে ঋণাত্মক পূর্ণসংখ্যা বলে।

প্রশ্ন-২১. গাণিতিক বাক্য কি?

উত্তর : গাণিতিক বাক্য হলো সংখ্যা, প্রতীক, রাশি সংবলিত এমন একটি উক্তি, যা সত্য না মিথ্যা নিঃসন্দেহে বলা যায়।

প্রশ্ন-২২. অক্ষর প্রতীক কাকে বলে?

উত্তর : অজানা সংখ্যা নির্দেশ করতে যে প্রতীক ব্যবহার করা হয় তাকে অক্ষর প্রতীক বলে।

প্রশ্ন-২৩. খোলা বাক্য কাকে বলে?

উত্তর : যখন কোনো বাক্য সত্য না মিথ্যা তা নির্ণয় করা যায় না তখন তাকে খোলা বাক্য বলে।

প্রশ্ন-২৪. কে প্রথম ‘+’ এবং ‘-‘ প্রতীকের ব্যবহার শুরু করেন?

উত্তর : ১৪১৪ খ্রিষ্টাব্দে ডাচ গণিতবিদ ভোদের হোয়েম প্রথম ‘+’ এবং ‘-‘ প্রতীকের ব্যবহার শুরু করেন।

প্রশ্ন-২৫. ভাগ চিহ্নকে ইংরেজিতে কি বলে?

উত্তর : ভাগ চিহ্নকে ইংরেজিতে ডিভিশন সাইন বলে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button