ব্যাকরণ

যৌগিক ক্রিয়া ও মিশ্র ক্রিয়া কাকে বলে? যৌগিক ও মিশ্র ক্রিয়ার মধ্যে পার্থক্য কি?

যৌগিক ক্রিয়া কাকে বলে?

একটি সমাপিকা ও একটি অসমাপিকা ক্রিয়া যদি একত্রে একটি বিশেষ বা সম্প্রসারিত অর্থ প্রকাশ করে, তবে তাকে যৌগিক ক্রিয়া বলে। যেমন–

ক. তাগিদ দেয়া অর্থে : ঘটনাটা শুনে রাখো।

খ. নিরন্তরতা অর্থে : তিনি বলতে লাগলেন।

গ. কার্যসমাপ্তি অর্থে : ছেলেমেয়েরা শুয়ে পড়ল।

ঘ. আকস্মিকতা অর্থে : সাইরেন বেজে উঠল।

ঙ. অভ্যস্ততা অর্থে : শিক্ষায় মন সংস্কারমুক্ত হয়ে থাকে।

চ. অনুমোদন অর্থে : এখন যেতে পার।

মিশ্র ক্রিয়া কাকে বলে?

বিশেষ্য, বিশেষণ ও ধ্বন্যাত্মক অব্যয়ের সঙ্গে কর্, হ্, দে, পা, যা, কাট্, গা, ছাড়্, ধর্, প্রভৃতি ধাতুযোগে গঠিত ক্রিয়াপদ বিশেষ বিশেষ অর্থ প্রকাশ করলে, তাকে মিশ্র ক্রিয়া বলে। যেমন–

ক. বিশেষ্যের উত্তর (পরে) : আমরা তাজমহল দর্শন করলাম। এখন গোল্লায় যাও।

খ. বিশেষণের উত্তর (পরে) : তোমাকে দেখে বিশেষ প্রীত হলাম।

গ. ধ্বন্যাত্মক অব্যয়ের উত্তর (পরে) : মাথা ঝিমঝিম্ করছে।

যৌগিক ক্রিয়া ও মিশ্র ক্রিয়ার মধ্যে পার্থক্য কি?

যৌগিক ক্রিয়া

  • একটি সমাপিকা, ক্রিয়া ও একটি অসমাপিকা ক্রিয়া যদি একটি বিশেষ অর্থ প্রকাশ করে, তবে তাকে যৌগিক ক্রিয়া বলে।
  • যৌগিক ক্রিয়ায় পড়, দে, নী, আস, লাগ, ফেল প্রভৃতি ধাতু যুক্ত হয়।
  • যুক্ত ক্রিয়াপদে অসমাপিকা ক্রিয়াপদের অর্থই প্রধান থাকে।
  • উদাহরণ : ঘণ্টা বেজে উঠল। নামটা জেনে রাখ।

মিশ্র ক্রিয়া

  • বিশেষ্য, বিশেষণ বা ধ্বন্যাত্মক অব্যয়ের সঙ্গে বিভিন্ন ধাতু যুক্ত হয়ে বিশেষ অর্থ প্রকাশ করলে, তাকে মিশ্র ক্রিয়া বলে।
  • মিশ্র ক্রিয়ায় কর, যে, দ, পা, যা, কাট, ধর, মার প্রভৃতি ধাতু যুক্ত হয়।
  • মিশ্র ক্রিয়াপদে সমাপিকা ক্রিয়ার অর্থের প্রধান্য থাকে।
  • উদাহরণ : আমরা তাজমল দর্শন করলাম। মাথা ঝিম ঝিম করছে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button