কম্পিউটার হার্ডওয়্যার

ফ্লপি ডিস্ক (Floppy Disk) কাকে বলে? ফ্লপি ডিস্কের বৈশিষ্ট্য, সুবিধা ও অসুবিধা কি?

অপেক্ষাকৃত কম ধারণক্ষমতাসম্পন্ন চৌম্বকীয় পদার্থের আবরণ লাগানো পাতলা ডিস্ককে ফ্লপি ডিস্ক (Floppy Disk) বলে। Floppy Disk-এর ধারণক্ষমতা সাধারণত ৩৬০ কিলোবাইট থেকে ১.৪৪ মেগাবাইট পর্যন্ত। ১৯৭৩ সালে IBM Company সর্বপ্রথম ফ্লপি ডিস্ক উদ্ভাবন করে। কিন্তু, ফ্লপি ডিস্কের ব্যবহার বর্তমানে এতটাই কমে গেছে যে, এর ব্যবহার নেই বললেই চলে। ধারণ ক্ষমতা ও নির্ভরযোগ্যতা কম হওয়ার কারণে এর ব্যবহার বন্ধ হয়েছে।

ফ্লপি ডিস্কের বৈশিষ্ট্য (Characteristics of Floppy Disk)

  • অন অবস্থায় ফ্লপি ডিস্ক মিনিটে ৩৬০ বার ঘোরে।
  • ফ্লপি ডিস্ক থেকে কিছু পড়ার সময় চৌম্বক ক্ষেত্র বৈদ্যুতিক সংকেতে পরিণত হয়।
  • ফ্লপি ডিস্কে কিছু লেখার সময় বৈদ্যুতিক সংকেত চৌম্বক ক্ষেত্রে পরিণত হয়।
  • ফ্লপি ডিস্কে তথ্য রাখা যায় এবং প্রয়োজনমতো তথ্য পড়া যায়।
  • ফ্লপি ডিস্কের তথ্য মোছা যায়।
  • এটি বাইরে থাকে এবং এর ধারণক্ষমতা হার্ড ডিস্কের তুলনায় অনেক কম।
  • এর এক্সেস টাইম হার্ড ডিস্কের তুলনায় অনেক বেশি।
  • তথ্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রে এর নির্ভরযোগ্যতা ও স্থায়িত্ব হার্ড ডিস্কের তুলনায় অনেক কম।
  • এটি বইয়ের পাতার মতো বিধায় সহজে নষ্ট হয়ে যায়৷
  • এর মধ্যে বেশিদিন তথ্য সঞ্চিত রাখা যায় না।
  • সামান্য তাপ ও আর্দ্রতায় ফ্লপি ডিস্ক নষ্ট হয়ে যায়।
  • এটি কম গতিসম্পন্ন সঞ্চয় মাধ্যম (Storage Media)।

ফ্লপি ডিস্কের সুবিধাসমূহ (Advantages of Floppy Disk)

  • এটি দামে সস্তা।
  • এটি হালকা বিধায় সহজে বহন করা যায়।
  • হার্ড ডিস্কের তথ্য বা প্রোগ্রাম ফ্লপি ডিস্কে কপি করে রাখা যায়।
  • হার্ড ডিস্কের প্রোগ্রাম নষ্ট অবস্থায় ফ্লপি ডিস্ক দিয়ে কাজ করা যায়।
  • ফ্লপি ডিস্কের তথ্য ইচ্ছামতো মোছা যায় এবং কপি করা যায়।

ফ্লপি ডিস্কের অসুবিধাসমূহ (Disadvantages of Floppy Disk)

  • এটি বইয়ের পাতার মতো বিধায় সহজে নষ্ট হয়ে যায়।
  • এর তথ্য ধারণক্ষমতা কম।
  • এর মধ্যে বেশিদিন তথ্য জমা রাখা যায় না।
  • সামান্য তাপ ও আর্দ্রতায় এটি নষ্ট হয়ে যায়।
  • সমধর্মী বা বিপরীতধর্মী চুম্বকের উপস্থিতিতে এর সকল তথ্য নষ্ট হয়ে যায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button