আর্টিকেল

পানি দূষণের উৎস ও প্রভাব।

পানি দূষণের উৎস

প্রাকৃতিক উৎসসমূহঃ জীবজন্তু ও গাছপালার মৃত্যুজনিত পদার্থ, আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে উদ্ভূত পদার্থ, পাহাড় ও ভূমির ক্ষয়ে পদার্থসমূহ পানিবাহিত হয়ে নদীতে এসে পড়ে এবং নদীর পানি দূষিত হয়।

কৃত্রিম উৎসসমূহঃ কলকারখানা, শিল্পঞ্চল থেকে নির্গত পদার্থ, মানুষের মলমূত্র, গৃহপালিত পশুর খাবার অবশেষ নদীর পানিতে মিশে ইহাকে দূষিত করে।

পানি দূষণের প্রভাব

নদ-নদী, পুকুর, খাল-বিল ও ভূগর্ভস্থ উৎসের পানি দূষিত হলে তা উদ্ভিদ, প্রাণী ও মানুষের উপর নানারকম ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে, এমনকি কখনো কখনো তা মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। যেমন–

মানুষের উপর প্রভাব : টাইফয়েড, আমাশয়, কলেরা, জন্ডিস, হেপাটইটিস-বি, চর্মরোগ প্রভৃতি পানিবাহিত এইসব রোগের জীবাণু নানাভাবে পানিতে প্রবেশ করে; সেই পানিতে গোসল করলে, পান করলে, ঐ পানি দিয়ে খাবার রান্না করলে বা ধুলে অথবা যেকোনভাবে দূষিত পানির সংস্পর্শে এলে মানুষের দেহে এইসব জীবাণু সংক্রামিত হয়। এছাড়া ভারী ধাতু বা তেজস্ক্রিয় পদার্থ দ্বারা পানি দূষিত হলে তা মানুষের মস্তিস্কে বিকলাঙ্গতা, ক্যান্সারসহ অন্যান্য মারাত্মক রোগ সৃষ্টি করতে পারে।

জলজ উদ্ভিদ ও প্রাণীজগতের উপর প্রভাব : দূষিত পানি জলজ খাদ্য শৃঙ্খলের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে, যার ফলে ক্ষুদ্র প্লাঙ্কটন থেকে শুরু করে বিভিন্ন মাছ এবং জলজ প্রাণীর উপর নির্ভরশীল অন্যান্য প্রাণী ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button