গণিত বিজ্ঞান

ত্রিকোণমিতি বলতে কি বুঝায়? ত্রিকোণমিতির জনক কে? ত্রিকোণমিতির ব্যবহার।

ত্রিকোণমিতি হচ্ছে গণিত শাস্ত্রের একটি বিশেষ শাখা। ইংরেজি Trigonometry শব্দটি গ্রিক শব্দ trigon যার অর্থ তিন কোণ এবং Metron যার অর্থ পরিমাপ এর সমন্বয়ে গঠিত। পরিমাপের ক্ষেত্রে উদ্ভূত নিত্য-নতুন জটিল সমস্যা সহজে সমাধানের জন্যই ত্রিকোণমিতির আবির্ভাব। ত্রিকোণমিতিতে ত্রিভুজের বাহু ও কোণের মধ্যে সম্পর্ক বিষয়ে পাঠদান করা হয়।

ত্রিকোণমিতির জনক Hipparchus (হিপ্পারচাস)

ত্রিকোণমিতির ব্যবহার

অতি প্রাচীনকাল থেকে জ্যোতির্বিদায় ত্রিকোণমিতি ব্যবহৃত হচ্ছে। সূর্যের গতি ও সময় নির্ণয়ের প্রাচীনতম যন্ত্র “Shadow Stick”-এ প্রথম ব্যবহৃত হয়েছিল এই ত্রিকোণমিতি। এছাড়া পরবর্তীতে ত্রিকোণমিতি ব্যবহার করে অনেক ধরনের ঘড়ি আবিষ্কৃত হয় যেগুলো বিভিন্ন নক্ষত্রের সাহায্যে সময় নির্ণয় করতে পারত। যেমন- Gonon Circle, Merkhet ইত্যাদি। অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ নির্ণয়েও ত্রিকোণমিতি ব্যবহৃত হয়। ত্রিকোণমিতির ধারণাকে কাজে লাগিয়ে প্রাচীন জ্যোতির্বিদরা ঋতু নির্ণয় করেছিলেন যা সেই সময় বড় বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন- বন্যা, খরা, ঘূর্ণিঝড় ইত্যাদির পূর্বাভাস দিতে সাহায্য করেছিল।

ত্রিকোণমিতিক সমীকরণ ও এর সমাধান

ত্রিকোণমিতিক সমীকরণ : এক বা একাধিক ত্রিকোণমিতিক অনুপাত সম্বলিত সমীকরণকে ত্রিকোণমিতিক সমীকরণ বলে।

ত্রিকোণমিতিক সমীকরণের সমাধান : ত্রিকোণমিতিক সমীকরণটির সংশ্লিষ্ট কোণকেই চলরাশি বলা হয়। চলরাশির (কোণের) যে সকল মানের জন্য ত্রিকোণমিতিক সমীকরণটি সিদ্ধ হয়, সে সকল মানকে সমীকরণটির সমাধান বলা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button