কম্পিউটার

কম্পিউটার অপরাধ বলতে কি বুঝায়?

আমাদের সমাজের চারপাশে সন্ত্রাসী, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, রাহাজানি ইত্যাদি নানা ধরনের অপরাধ হয়ে থাকে। ঠিক তেমনি বর্তমান আধুনিক বিশ্বে কম্পিউটারের জগতেও নানা ধরনের অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। কম্পিউটার হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, নেটওয়ার্ক, রিসোর্স, ডেটা বা ইনফরমেশন ইত্যাদি প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ব্যবহার করে কোন অবৈধ কাজ করাকে কম্পিউটার অপরাধ বলে। কম্পিউটারের বৈপ্লবিক পরিবর্তনের সাথে সাথে এ জগতে সংঘটিত অপরাধের পরিমাণও বেড়ে যাচ্ছে। কম্পিউটার অপরাধ সাধারণত বিভিন্ন ধরনের নেটওয়ার্ক, ইন্টারনেট এবং মেমোরি ডিভাইসের মাধ্যমে সংঘটিত হয়। এ অপরাধ বিভিন্ন ধরনের বিজনেস সিস্টেম, ব্যক্তিগত নিরাপত্তা এমনকি ব্যক্তিগত কম্পিউটারকেও ক্ষতিগ্রস্ত করে। Association of Information Technology Professionals-AITP নিম্নলিখিত বিষয়গুলোকে কম্পিউটার অপরাধ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছেন।

১. অনাদিষ্ট ব্যক্তি কর্তৃক হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ডেটা এবং নেটওয়ার্ক রিসোর্সের ব্যবহার, প্রবেশ, পরিবর্তন এবং ক্ষতিসাধন (The unauthorized use, access, modification and destruction of hardware, software, data, of network resources);

২. অনাদিষ্ট ব্যক্তি কর্তৃক তথ্য প্রকাশ (The unauthorized release of information);

৩. অনুজ্ঞাতে সফটওয়্যার কপি করা (The unauthorized copying of software);

৪. কোন বৈধ ব্যবহারকারীকে তার নিজস্ব হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ডেটা অথবা নেটওয়ার্ক রিসোর্স ব্যবহার করতে না দেয়া (Denying and end user access to his or her own hardware, software, data, or network resources.)

৫. অবৈধভাবে কোন তথ্য অথবা নির্দিষ্ট কোন সম্পদ পাওয়ার জন্য কম্পিউটার বা নেটওয়ার্ক রিসোর্স ব্যবহার করা বা ব্যবহারের ষড়যন্ত্র করা (Using or conspiring to use computer or network resources to illegally obtain information or tangible property)

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button